33 C
Dhaka
Monday, May 23, 2022
spot_img

প্রশাসনে নারীর জন্য চ্যালেঞ্জ

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)- এসিল্যান্ড থেকে শুরু করে সরকারের সচিব পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করছেন সরকারের নারী অফিসাররা। পুরুষ কর্মীর পাশাপাশি নিজেদের যোগ্যতা ও দক্ষতা দিয়ে প্রমাণ করছেন তারাও পিছিয়ে নন।

নারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কোনো বাধা না থাকলেও সেবা দিতে গিয়ে তৈরি হওয়া প্রতিপক্ষ কখনও কখনও বাধা হয়ে দাঁড়ায়। এমনটাই বলছিলেন বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের সভাপতি ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। যিনি বর্তমানে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা সচিব পদে ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম ছাড়াও আরও আট কর্মকর্তা রয়েছেন। পাশাপাশি গ্রেড-১ পদে তিনজন, অতিরিক্ত সচিব ৫৮ জন, যুগ্মসচিব ১২৩ জন, উপসচিব ৩৭৮ জন, সিনিয়র অ্যাসিসট্যান্ট চিফ ৪৪ জন, সিনিয়র অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি ৪৯১ জন, অ্যাসিসট্যান্ট চিফ ১৩ জন, অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি ৪১৩ জন, অ্যাসিসট্যান্ট কমিশনার (ল্যান্ড) ১৪৬ জন নারী দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়া জেলা প্রশাসক (ডিসি) আটজন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ১৩৮ জন এবং অ্যাসিসট্যান্ট কমিশনার (ল্যান্ড) পদে ১৪৬ জন নারী কর্মকর্তা রয়েছেন।

সংখ্যায় কম হলেও শীর্ষ পদে নারীর অবস্থান বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় খাদ্য সচিব নাজমানারা খানুম গণমাধ্যমকে বলেন, শীর্ষ পদে এসেছি এটা পজিটিভ দিক।
দায়িত্ব পালনে নারী কর্মকর্তারা কোনো বাধার সম্মুখীন হন কিনা- প্রশ্নে খাদ্য সচিব বলেন, নারী হিসেবে যে বাধা সেটা এবসুলেটলি আছে। যেহেতু আমাদের দেশে এখনও জেন্ডার বৈষম্যমূলক আছে। সেবা দিতে গিয়ে প্রতিপক্ষ আছে। অফিসিয়ালি কোনো বাধা নেই।

বর্তমানে আট জেলায় নারী জেলা প্রশাসক দায়িত্ব পালন করছেন।

এ প্রসঙ্গে খাদ্য সচিব নাজমানারা খানুম বলেন, জেলা প্রশাসক যারা কাজ করেন, রাতে যে প্রোগ্রাম বা দুর্ঘটনা সেটা কাভার করা হয়তো যায় না। তবে সেটা খুব সিগনিফিকেন্ট না। তবে এখন সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং আইসিটির যোগাযোগ- দুটোর উন্নতি হয়েছে। যখন চাকরিতে ঢুকি তখন এমন সুবিধা তেমন ছিল না। অনেক স্মুথ হয়েছে। নারীরা সাহসের সঙ্গে কাজ করতে পারছেন। এটা পজিটিভ।

নারীদের চ্যালেঞ্জ নিয়ে তিনি বলেন, দক্ষতা, যোগ্যতা ও উপযুক্ততার ঘাটতি আছে। যেটা পাওয়ার সেটা পাচ্ছে না।

নারী কর্মকর্তাদের প্রত্যাশা নিয়ে খাদ্য সচিব নাজমানারা খানুম বলেন, নারীদের আরও যোগ্যতর করে গড়ে তুলতে হবে। আগামীর যে দিন সেটার জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তলতে হবে। সরকারের যে সাপোর্ট আছে তাতে অনেক দূর আগাবেন নারীরা।

কর্মস্থলে পুরুষ সহকর্মীর বিষয়ে খাদ্য সচিব নাজমানারা খানুম বলেন, পুরুষ কর্মীরা সহযোগিতা করছে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,044FansLike
3,324FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles