29 C
Dhaka
Sunday, September 19, 2021
spot_img

তালেবানদের পরিবর্তন, কিভাবে দেখছে বিশ্ব

গত ২০ বছরে তালেবান আসলেই আগের চেয়ে কম অসহিষ্ণু হয়েছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ৷ এদিকে, কাবুল বিমানবন্দর থেকে বিদেশি এবং তাদের সহায়তা করা আফগানদের অন্যত্র সরিয়ে নেয়া অব্যাহত রয়েছে৷

পুনরায় আফগানিস্তানের দখল নেয়ার পর মঙ্গলবার প্রথমবার সংবাদ সম্মেলন করে তালেবান৷ উগ্ররক্ষণশীল বিদ্রোহী গোষ্ঠীটির মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ জানিয়েছেন, তালেবান কোনো প্রতিশোধ নিতে চায় না এবং সবাইকে ক্ষমা করে দিয়েছে৷

তালেবান মুখপাত্রের এই বক্তব্য নিয়ে অবশ্য সন্দিহান জাতিসংঘ৷ আর জার্মানি জানিয়েছে, কোন প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতে নয়, বরং গোষ্ঠীটির কর্মকাণ্ডের উপর নির্ভর করে সেটি সম্পর্কে নিজেদের অবস্থান নির্ধারণ করবে মধ্য ইউরোপের দেশটি৷

এদিকে, আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)-র প্রধান কৌঁসুলি মনে করেন, আফগানিস্তানের সাম্প্রতিক কিছু ঘটনা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের পরিপন্থি হতে পারে যার মধ্যে প্রতিশোধমূলক বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডও রয়েছে৷

নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাই, যিনি পাকিস্তানে তালেবানের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছিলেন, আফগান নারীদের অবস্থা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন৷

মার্কিন সংবাদপত্র নিউইয়র্ক টাইমস-এ তিনি লিখেছেন, ‘‘আমরা তাদের ব্যর্থ হতে দিতে পারি না৷ আমাদের নষ্ট করার মতো সময় হাতে নেই৷’’

জার্মানি এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি দেশ কাবুল বিমানবন্দর থেকে শত শত মানুষকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার কাজ অব্যাহত রেখেছে৷ মঙ্গলবার কাবুল থেকে তাসখন্দ-এ সরিয়ে নেয়া ১৩০ জনের মতো মানুষ বুধবার সকালে জার্মানির বাণিজ্যিক বিমানসংস্থা লুফৎহানসার মাধ্যমে ফ্রাঙ্কফুর্ট শহরে পৌঁছেছেন৷

আফগান আশ্রয়প্রার্থীদের কী হবে?

নিজ দেশে নিপীড়নের ঝুঁকিতে থাকা বেশ কয়েক হাজার আফগান নাগরিকের ভবিষ্যত কী হবে তা নিয়ে আলোচনা অব্যাহত রেখেছেন বিশ্ব নেতারা৷

অস্ট্রিয়া জানিয়েছে নতুন করে কোন শরণার্থী নিতে আগ্রহী নয় দেশটি৷ তবে যুক্তরাজ্য চলতি বছর পাঁচ হাজার এবং আগামী বছরগুলোতে আরো ২০ হাজারের মতো শরণার্থী গ্রহণের প্রস্তাব দিয়েছে৷

যদিও জার্মানির কয়েকজন আইনপ্রণেতা বড় সংখ্যক আশ্রয়প্রার্থী এবং শরণার্থীর ভিড় হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন, তা সত্ত্বেও বিপদে পড়া আফগানদের নিরাপদ আশ্রয় নিশ্চিত করার দাবিতে ইউরোপের দেশটির বেশ কয়েকটি শহরে মিছিল হয়েছে৷

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর বর্তমান পরিস্থিতিতেও আফগানিস্তানে কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখার আশা প্রকাশ করেছে৷ সংস্থাটি দেশটির ভেতরে বাস্তুচ্যুত মানুষদের সহায়তা করছে৷

বিশ্ব শক্তিগুলোর অবস্থানে বিভক্তি

তালেবানের সঙ্গে ‘গঠনমূলক আলোচনা’ হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে রাশিয়া৷ কাবুলে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত দিমিত্রি জায়েরনাভ বলেন, ‘‘তালেবান প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন যে রাশিয়ার প্রতি সবচেয়ে বন্ধুভাবাপন্ন অবস্থান রয়েছে গোষ্ঠীটির৷’’

ইইউ মনে করছে তালেবানের সঙ্গে আলোচনা করা জরুরী যদিও ইউরোপের দেশগুলোর জোট বিদ্রোহী গোষ্ঠীটিকে আফগানিস্তানের শাসক হিসেবে এখনো স্বীকৃতি দেয়নি৷

ইইউ’র বিদেশ নীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেইল জানিয়েছেন, আপাতত আফগানিস্তানে উন্নয়ন সহায়তা দেয়াও বন্ধ রাখবে জোটটি৷

দায়িত্ব নিতে ফিরেছেন তালেবান নেতা

আফগানিস্তানের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ মঙ্গলবার টুইটারে দেশটির ‘‘আইনসম্মত ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট’’ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন কেননা দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি ইতোমধ্যে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন৷

তবে, মঙ্গলবার কান্দাহারে ফিরেছেন তালেবান শীর্ষ নেতা এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা মোল্লাহ আবদুল গনি বারাদার৷ তিনি এর আগে দোহাতে ছিলেন এবং তালেবানের সঙ্গে আফগান সরকারের যে শান্তি আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে সেটির নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন৷

বারাদার হচ্ছেন ইসলামপন্থি গোষ্ঠীটির এখন অবধি সবচেয়ে বড় পর্যায়ের নেতা যিনি আফগানিস্তানে ফিরলেন৷ ভবিষ্যতে তালেবান সরকার গঠন করলে সেখানে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারেন।

 

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে অবলম্বনে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,044FansLike
2,944FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles